আজ  শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮

আজীবন মানব সেবায় নিরলসভাবে কাজ করে যাবেন….জাপান প্রবাসী এমডি ঝন্টু

30859169_1837137779671800_936624663_n

এম. পারভেজ পাটোয়ারীঃ চাঁদপুর মতলব উত্তরে আবুরকান্দি গ্রামের মরহুম আতাউর রহমান সিআইপি এমন একজন মানুষ ছিলেন একজন মানবসেবার অগ্রসৈনিক পাশাপাশি স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি আওয়ামীলীগ এর মতলব উত্তরের অন্যতম একজন। তিনি মতলবের অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজের উন্নয়ন কাজে সম্পৃক্ত ছিলেন। মরহুম আতাউর রহমান মৃত্যুর পূর্বে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের তিনি অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অনুপ্রাণিত করতেন। আর তিনি মারা যাওয়ার পর তাঁরই পথ ধরে মরহম আতাউর রহমানের ছোট ভাই জাপান প্রবাসী যুবলীগ নেতা জহিরুল ইসলাম ঝন্টু মতলব উত্তরের মানব সেবায় নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আসলে মরহুম আতাউর রহমান বা তার পরিবারের সদস্যরা কখনো জনপ্রতিনিধি হয়ে সেবা করতে চাননি, তাঁরা সবসময় অকাতরে নির্লোভ ভাবে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।  পৃথিবীতে সেই মানুষগুলোই সবচেয়ে বেশী সুখের কাছাকাছি যেতে পেরেছে, যারা নিজেদেরকে আর্ত-মানবতার সেবায় বিলিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে। তাই আসুন, আমরাও এগিয়ে চলি, আর্ত-মানবতার সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করে জীবনের আসল স্বাদ আস্বাদন করি।
মানব সেবার নামে আতœ সেবারপ্রবণতাটাই এদেশের চোখে পড়ে বেশি। মানব সেবা থেকেই সমাজ সেবার প্রশ্নটি এসে যায়। এদেশে এখনো এমন অনেই ব্যক্তি রয়েছেন যারা আসলেই মানব সেবায় যথেষ্ট আন্তরিক। আল্লাহর সৃষ্টি মানুষের সেবাকেই তারা পরম ধর্ম বলে বিশ্বাস করেন। এ ধর্ম পালনের লক্ষেই তারা সমাজ সেবামূলক সংগঠন গড়ে তুলেন একান্ত ভাবে নিজের উদ্যোগে। আসলে সমাজ সেবা একটি কঠিন কাজ। শুধু অর্থ বিত্ত থাকলেই সমাজ সেবক হওয়া যায়না। আবার অর্থ বিত্ত না থাকলে ও সমাজ সেবকের পরিচিতি লাভ করা যায় না। এটা নির্ভর করে মন ও মানসিকতার উপর। তার কাজের ধরনের উপর। এমন লোক এদেশে আছে যাদের মাঝে মানুষ মানুষের জন্য-জীবন জীবনের জন্য এ উপলব্ধির যথেষ্ট গভীরতা রয়েছে। সাধ্য না থাকলে ও মানব সেবার তাগিদ রয়েছে তাদের ভেতরে। এই তাগিত বোধ থেকেই জড়িয়ে যান তারা সমাজ সেবার কাজে। আর্থিক সামর্থ থাকা সত্বে ও অনেক মানুষ মানবসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে আগ্রহী হয় না। তাই কথায় আছে ভোগেই নয়, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ এ কথার মর্ম অনুধাবন করে নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত না থেকে দেশ, জাতি ও সমাজও উন্নয়ন নিয়ে ভাবেন ও কোন আদর্শ বুকে ধারন করে দেশ গড়ার কাজে আতœনিয়োগ করেন এবং মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেন। কেউ বিভ্রান্ত হবেন না জহিরুল ইসলাম ঝন্টু মানবসেবা কে বুকে ধারন করে আজীবন অসহায় মানুষের সেবা করে যাবেন-ইনশাআল্লাহ।
তাই মরহম আতাউর রহমানের পরিবারের সদস্যদের জন্য সবাই দোয়া প্রতি চেয়েছেন তাঁরই ছোট ভাই জাপান প্রবাসী এমডি ঝন্টু। তারা যেনো আজীবন মানবসেবা করে যেতে পারেন।