আজ  শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আমার কোনো পিএস নেই: ইশরাক

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,
রাজধানীর গোপীবাগে নির্বাচনী প্রচারণার সময় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের সময় গুলি চালানোর ঘটনায় গ্রেপ্তার আরিফুল ইসলাম নিজের পিএস নন বলে দাবি করেছেন বিএনপি প্রার্থী ইশরাক হোসেন।
গ্রেপ্তার আরিফুল বিএনপি প্রার্থী ইশরাকের পিএস বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানোর পরই গণমাধ্যমে এক বিবৃতি পাঠান ইশরাক। বিজ্ঞপ্তিতে আরিফুলকে বিএনপি সমর্থক বলে দাবি করলেও তিনি নিজের পিএস নন বলে দাবি করেন ইশরাক।
গত ২৬ জানুয়ারি রাজধানীর ওয়ারীর গোপীবাগ এলাকায় নির্বাচন প্রচারণাকালে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে গুলির শব্দও শোনা যায়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এ ঘটনায় ওয়ারী থানায় একটি মামলা করা হয়। থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা বিভাগও ছায়া তদন্ত শুরু করে। এ ঘটনায় গতকাল রাতে অভিযান চালিয়ে আরিফুল ইসলাম নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তার আরিফুলের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে পুলিশ। সেখানে জানানো হয় আরিফুল বিএনপি কর্মী। সাবেক ছাত্রদলের এই নেতা ঢাকা দক্ষিণে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনের পিএস।
পুলিশের পক্ষ থেকে গ্রেপ্তার আরিফুলকে ইশারাকের পিএস বলা হলেও বিএনপি প্রার্থী ইশরাক তা অস্বীকার করেন।
গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে সাদেক হোসেন খোকাপুত্র ইশরাক জানান, তার কোনো ব্যক্তিগত সহকারী বা একান্ত সচিব নেই। তবে গ্রেপ্তারকৃত এই ব্যক্তি বিএনপির সমর্থক বলে জানানো হয়েছে বিবৃতিতে।
ইশরাকের পক্ষ থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত রাতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে আরিফুল ইসলাম নামে একজনের গ্রেপ্তারকে কেন্দ্র করে তাকে ইশরাক হোসেনের ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে গত রাতেই ইশরাক হোসেন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেছেন, তার কোনো ব্যক্তিগত সহকারী বা একান্ত সচিব নেই। তিনি দলের একজন সমর্থক মাত্র। সে হিসেবে নির্বাচনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে তিনি অন্যদের মতই স্ব উদ্যোগে অংশ নিয়েছেন