আজ  মঙ্গলবার, ১৯ জুন, ২০১৮

চাঁদপুরের কৃতিসন্তান ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশের নবনিযুক্ত মহাপরিদর্শক (আইজিপি)

27332300_10155331689649537_596882786946799933_n
এম. পারভেজ পাটোয়ারী ঃ
স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) অতিরিক্ত আইজি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীকে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিনি সদ্য বিদায়ী আইজিপি এ কে এম শহীদুল হকের স্থলাভিষিক্ত হলেন। বিসিএস ১৯৮৪ ব্যাচের এই কর্মকর্তা ১৯৮৬ সালে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে চাকরিতে যোগ দেন। তাঁর চাকরির  মেয়াদ রয়েছে ২০২০ সাল পর্যন্ত। গত নয় বছর পুলিশের বিশেষ শাখার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন ড. জাবেদ পাটোয়ারী।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত মঙ্গলবার রাজধানীতে পুলিশের ওপর হামলার তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের হামলা আর সহ্য করা হবে না।
তিনি বলেন, আইন-শৃংখলা বজায় রাখতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো শক্তিশালী ভূমিকা পালন করছে। এমনকি জনগণের জান-মাল রক্ষায় তারা জীবন উৎসর্গ করছে।
তিনি বলেন, ‘পুলিশের ওপর ন্যক্কারজনক হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ধরনের জঘন্য ঘটনা আমরা ভবিষ্যতে সহ্য করবো না।’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বুধবার সন্ধ্যায় গণভবনে পুলিশের নতুন আইজিপি জাভেদ পাটোয়ারীকে র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেয়ার সময় এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং বিদায়ী আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক উপস্থিত ছিলেন।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘কারাগারের রোজনামচা’র তথ্য সংগ্রহে ড. জাবেদ পাটোয়ারী বিশেষ ভূমিকা রাখেন। সদ্য বিদায়ী আইজিপি একেএম শহীদুল হকের চাকরির মেয়াদ  শেষ হয়েছে গত ৩১ জানুয়ারি। তার স্থলে যোগ দিলেন ড. জাবেদ পাটোয়ারী। বিসিএস পুলিশের ১৯৮৪ ব্যাচের এ কর্মকর্তা পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন ১৯৮৬ সালে। সম্মিলিত  মেধা তালিকায় তার অবস্থান চতুর্থ এবং পুলিশের এই ব্যাচে প্রথম। ড. জাবেদ পাটোয়ারী জাতীয় বেতন স্কেলের গ্রেড-১ ভুক্ত কর্মকর্তা। যাহা গ্রেড সচিব পদমর্যাদার। ২০১৩ সালে বিদায়ী আইজিপি ও তিনি এই গ্রেড অর্জন করেন। বর্তমানে আইজিপির পদটি সিনিয়র সচিব পদমর্যাদার। তবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এই পদমর্যাদা প্রদানের বিষয়টি প্রজ্ঞাপন আকারে ঘোষণা করা হয়। ড. জাবেদ পাটোয়ারী পুলিশ বাহিনীতে একজন মেধাবী ও  পেশাদার কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত। প্রচারবিমুখ ও মৃদুভাষী এ কর্মকর্তা সুনামের সঙ্গে দীর্ঘদিন চাকরি করে আসছেন। এসবির প্রধান হিসেবে একটানা দীর্ঘ ৯ বছর যাবত কর্মরত ছিলেন। এর আগে ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৯ সালের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত তিনি এসএস সিটির দায়িত্ব পালন করেন। চাঁদপুর সদরে তার গ্রামের বাড়ি। বঙ্গবন্ধুর জেলজীবনের ওপর  লেখা গ্রন্থ ‘কারাগারে রোজনামচার’র বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৪৮ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত এসবি’র রেকর্ড রুমে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে ৬৬ হাজার ক্লাসিফাইড গোয়েন্দা তথ্য সংরক্ষিত আছে। ড. জাবেদ পাটোয়ারী এসবির শীর্ষ পদে আসার পর গুরুত্বপূর্ণ এই দলিলাদি বিশেষভাবে সংরক্ষণে বিশেষ উদ্যোগ নেন। প্রধানমন্ত্রীর গুডবুকে পুলিশের উচ্চপদস্থ থাকা কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম।