আজ  শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০

চাঁদপুর রঘুনাথপুরে বসতঘর পুড়ে ছাই

 

চাঁদপুর সময় রিপোর্ট। চাঁদপুর রঘুনাথপুরে শহরের ৫ নং ওয়ার্ডের সিআইপি বেড়িবাঁধের পাশে বসতঘর পুড়ে ছাই ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৮লক্ষ টাকা মত। জানা যায় আজ বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর সকাল নয়টার সময় ঘরের ভিতরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই আগুন টি ধরে যায় সাথে সাথেই দাও দাও করে জ্বলতে থাকে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলেও পানি মেরে নেভানোর চেষ্টা করেও নিয়ন্ত্রণ আনতে পারেনি পরবর্তী চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস ডিপারমেন্টকে খবর দিলে সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হয় এবং আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে ঘরের মালিক মোঃ কাজল খান( ৫০) জানান যখন আগুন লেগে যায় তখন আমি বাসায় ছিলাম না আমার ছেলের বউ ও নাতি ছিল তিনি ঘর থেকে বেরিয়ে ডাকচিৎকার করেন এবং দেখতে পান ফ্যানের সাথে আগুন লেগে দাউদাউ করছে সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে আমার কিছুই নেই যাহা রাস্তার পাশে একটি ঘর করে বউ পোলাপান নিয়ে থাকতাম সব শেষ হয়ে গেছে
ঘরে থাকা নগদ প্রায় 50 হাজার টাকা তিন ভরি স্বর্ণ কালার টিভি ফ্রিজ স্টিলের আলমারি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ এর কিছুই নেই সব শেষ হয়ে মাটির সাথে মিশে গেছে আল্লাহ ছাড়া আর আমার কেউই নেই আগুনের এই দৃশ্য দেখে আমি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যাই। জ্ঞান ফিরে দেখি ঘরে কিছুই নেই সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে আমি খেটে খাওয়া দিনমজুর শ্রমিক কিভাবে এই ঘর করব বউ পোলাপান নিয়ে থাকবো নেই জমি নেই ঘর রাস্তার পাশে থাকা সেই ঘরটি ও আগুনে করে চাই হয়ে মাটির সাথে মিশে গেছে কান্না কন্ঠে তিনি বারবার একথাই বলেন। এদিকে খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস ডিপার্টমেন্ট আগুন নিভাতে সক্ষম হয় তবে আগুন টি বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে লাগতে পারে এটি প্রশাসনের ধারণা ঘটনাস্থলে চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ গিয়ে তদন্ত করেন। তবে অনেকে জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনর কাছে আকুল আবেদন এই পরিবারটি ছেলে সন্তানকে নিয়ে বাঁচতে পারে

সরকারের যে একটি ঘর একটি খামার প্রকল্প রয়েছে সেই থেকে মাননীয় জেলা প্রশাসক ও সদর ইউনু একটু নজর দিবেন অসহায় পরিবারটি যেন বসতঘর উঠিয়ে থাকতে পারে মানবিক ভাবে সুদৃষ্টি দেবেন।