আজ  রবিবার, ২০ মে, ২০১৮

ছেংগারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয় সরকারি হওয়ায় আনন্দ র‌্যালি

প্রধানমন্ত্রী ও ত্রাণ মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা
Matlab uttar pic 1

আরাফাত আল-আমিন ◊
দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর জাতীয়করণ হলো চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়। নাম পরিবর্তন হয়ে এখন ‘ছেংগারচর মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। স্কুলটি সরকারি হওয়ার আনন্দকে স্মরণীয় করতে রাখতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ বের করেছে এক আনন্দ র‌্যালি। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে আনন্দ র‌্যালিটি বের হয়ে ছেংগারচর পৌরসভা ও স্থানীয় এলাকার প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে।

শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগানে র‌্যালিটি আনন্দ মূখর করে তোলেন। ‘ছেঙ্গারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয় জাতীয়করণ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন, ছেঙ্গারচর স্কুল সরকারি করণ ত্রাণ মন্ত্রী মায়া চৌধুরীর দুই নয়ন, এ স্লোগানে মূখরিত হয়ে ওঠে ছেংগারচর এলাকা। র‌্যালিটি বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে স্কুল ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে সকল শিক্ষক, গর্ভনিং বডির সদস্যবৃন্দ, শিক্ষার্থী ও অভিভাববকবৃন্দ অংশগ্রহন করেন। র‌্যালি শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গোলাম সারোয়ারের সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষক আবুল কালামের পরিচালানায় বক্তব্য রাখেন, ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান ঢালী, আওয়ামীলীগ নেতা অলিউল্লাহ সরকার, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. কামাল হোসেন খান, সিনিয়র শিক্ষক আব্দুল হক প্রমুখ। বক্তারা বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শিক্ষা খাতে ব্যাপক উন্নয়ন করছেন। শিক্ষা জাতীয়করণ তারই একটি উদাহরণ। শেক হাসিনা একমাত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা বিধায় স্কুল সরকারিকরণ সম্ভব হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে শিক্ষা আরো উন্নত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন। বক্তারা আরও বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া (বীর বিক্রম) এমপির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ছেংগারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয় সরকারি হয়েছে। আমরা তার এ অবদান কখনো ভুলতে পারবো না। আমরা মন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ূ কামনা করি।

আরো উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র শিক্ষক আয়েত আলী, মাওলানা কবির হোসেন, নার্গিস আক্তার, মো. শাহীন মিয়া (এমএসসি) সহ সকল শিক্ষকবৃন্দ ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।