আজ  শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৮

পিইসি পরীক্ষার ফলাফল অন্তোষজনক মতলব উত্তরে আমুয়াকান্দি সপ্রাবি তিনটা বাজলেই ছুটি

M1
মতলব উত্তর প্রতিনিধি ॥
মতলব উত্তর উপজেলার গজরা ইউনিয়নের ৮৪নং আমুয়াকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় তিনটা বাজলেই ছুটি ঘন্টা বাজে। অনেক অভিভাবক এ অভিযোগ করেছেন। বুধবার বিকাল সাড়ে ৩ টায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে স্কুলের সকল ক্লাসরুমে তালা ঝুলছে। এবং প্রধান শিক্ষকসহ সকল শিক্ষকরাই স্কুল ছুটি দিয়ে চলে গেছেন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক অভিভাবক জানান, প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসি বেগম সারা বছর জুড়েই এ ধরনের অনিয়ম করে থাকেন। তার বাড়ি স্কুলের পাশ্ববর্তী হলেও তিনি সব সময় সকাল ১০ টার আগে স্কুলে আসেন না। আবার দুপুর ২টায় স্কুল থেকে মাঝে মাঝে চলে যান। এরমধ্যে আমার স্কুলে আসার পর স্কুল ফাঁকি দিয়ে বাড়িতেও চলে যান। অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, তার এ অনিয়মের কারনে এবারের সমাপনী পরীক্ষা ফলাফল খুবই খারাপ হয়েছে। ১৩ জন পাশ করলেও এ+ পেয়েছে মাত্র একজন। এ ধরনের ফলাফল আমরা কামনা করিনি।
এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসি বেগম বলেন, আজ (বুধবার) শুধু পৌনে চারটায় স্কুল ছুটি দিয়েছি। প্রতিদিন টাইম অনুযায়ী সোয়া চারটায় ছুটি হয়। আমার বিরুদ্ধে অভিভাবকরা যে অভিযোগ তুলেছে তা মিথ্যা।
স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহিদ হোসেন বলেন, নির্ধারিত সময়ের আগে ছুটি দেওয়া ঠিক নয়। আজ তিনি একটু আগেই ছুটি দিয়েছে ফেলেছেন। এজন্য প্রধান শিক্ষককে আমরা চাপ প্রয়োগ করেছি।
উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার মো. মোজাম্মেল হক বলেন, সঠিক সময়ে স্কুলে আসতে হবে এবং সঠিক সময়ের আগে স্কুল ছুটি দেওয়া যাবে না। নির্ধারিত সময়ের আগে স্কুল ছুটি দিয়েছে, এমন প্রমাণ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, নির্ধারিত সময়ের আগে স্কুল ছুটির ঘটনাটি আমি জানিনা। তবে এধরনের কিছু ঘটে থাকলে আমরা বিষয়টি নিয়ে দ্রুত মিটিং করবো।
উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন ভুঞা বলেন, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত সময়ের আগে স্কুল ছুটি দেওয়ার কোন বিধান নেই। এই আইন কেউ অমান্য করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।