আজ  শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ফরিদগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যান হত্যাচেষ্টায় মামলা যুবলীগের ১০ নেতাসহ আসামী ৩৫

 

চাঁদপুর: চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে প্রকাশ্যে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় মামলা হয়েছে থানায়।
শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদের ছোটভাই ঝুটন বাদী হয়ে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, যুগ্ম আহ্বায়ক হেলাল উদ্দিনসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২৫ জনকে এই মামলার আসামি করে।
অন্য আসামিরা হলো আব্দুল আজিজ, আলাউদ্দিন ভূঁইয়া, কালা মনির, অপু শেখ, পুতুল সরকার, আবুল কাশেম গাজী, ওয়াসিম আকরাম এবং রাব্বী হোসেন। এরা সবাই ফরিদগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।
আরো পড়ুন>>
**ফরিদগঞ্জে চেয়ারম্যানের ৩ আঙ্গুল কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা
**ফরিদগঞ্জের হামলার প্রতিবাদে যুবলীগের সংবাদ সম্মেলন
মামলার বাদী অভিযোগে উল্লেখ করেন, তার ভাই হারুনুর রশিদ বালিথুবা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান। গত বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদে আইনশৃঙ্খলা ও সমন্বয় কমিটির সভা শেষে নিজ এলাকায় ফেরার পথে প্রতিপক্ষ ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ফরিদগঞ্জ বাজারে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে। এতে চেয়ারম্যান হারুন গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
মামলা প্রসঙ্গে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আবদুর রকিব জানান, চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদের ছোটভাই ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার একটি অভিযোগ দিয়েছেন। এই মামলার তদন্ত এবং আইনগত ব্যবস্থা নিতে এসআই আব্দুল আওয়ালকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে আসামিদের গ্রেপ্তার নিয়ে ওসি কোনো মন্তব্য করেননি।
এদিকে, গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে চাঁদপুর জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক, ফরিদগঞ্জ বালিথুবা পূর্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদকে ভর্তি করা হয়। তার বাম হাতের তিনটি আঙুল বিচ্ছিন্নপ্রায়। শরীরের বিভিন্নস্থানেও গুরুতর আঘাত রয়েছে। পরে আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদিকে, চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদের সঙ্গে আহত যুবলীগ নেতা মহসিন তপাদার চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।