আজ  বৃহঃবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮

মতলবে জাপার মনোনয়ন প্রত্যাশী এ্যাড. শামীমের শোভাযাত্রা ও গণসংযোগ

9-10-2018y
এম.পারভেজ পাটোয়ারী: চাঁদপুর-২ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী এ্যাডভোকেট শামীমুল ইসলাম ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। গত ৩ মাস আগে থেকেই তিনি লাঙ্গলের পক্ষে কাজ করছেন। এ্যাড. শামীমুল ইসলাম উপজেলা জাতীয় যুবসংহতির আহ্বায়ক ও ঢাকা জজ কোর্টের একজন আইনজীবি।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) মতলব উত্তর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করেন ও শান্তিপূর্ণ মোটর শোভাযাত্রা করেছেন তিনি।

সকালে মতলব উত্তর উপজেলার সটাকী গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মোটর শোভাযাত্রাটি বের করে, ছেঙ্গারচর, বহুমূখী বাজার, পাঁচানী চৌরাস্তা বাজার, সুজাতপুর বাজার, নিশ্চিন্তপুর বাজার, বাগানবাড়ি, কালীপুর, বেলতলী, পাঠানবাজার, কালীপুর, ইমামপুর, ষাটনল ও সটাকী বাজারে প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় শতাধিক মোটর সাইকেলে শত শত নেতাকর্মী অংশ গ্রহন করেন। এর ফাঁকে বদরপুর হযরত শাহ্ সোলেমান লেংটার মাজার শরীফ জিয়ারত করেছেন ও সকলের জন্য শান্তি কামনা করে দোয়া চান।

উপজেলার বিভিন্ন স্থানে জাপা চেয়ারম্যান এরশাদের উন্নয়ন কর্মকান্ড মানুষের সামনে তুলে ধরেন তিনি। বিভিন্ন বাজার ও চা দোকানে সাধারন মানুষের কাছে দোয়া চান। দুপুরে সুগন্ধী গ্রামে আয়োজিত এক পথসভায় এ্যাড. শামীমুল ইসলাম বলেন, জাতীয় পার্টি দেশে অনেক উন্নয়ন করেছে। তার উদাহরন মতলবে অনেক আছে। তিনি আরও বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দল থেকে আমি মনোনয়ন চাইছি। আশা করি দলের চেয়ারম্যান ও সিনিয়র নেতৃবৃন্দ আমাকে মনোনয়ন দিবেন। জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবেন বলে আমি বিশ্বাস  করি।

এসময় বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় যুবসংহতির প্রাদেশিক সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন সিদ্দিকী, কেন্দ্রীয় যুবসংহতির সাবেক সদস্য ও উপজেলা যুবসংহতির সাবেক সভাপতি জিশান আহমেদ রিপন, উপজেলা জাপার সাধারন সম্পাদক শাহজাহান মিয়া, উপজেলা যুবসংহতির সদস্য সচিব আলমাছ মিয়া, যুগ্ম-আহ্বায়ক আজহার মুফতী, নেতা আবুল কালাম আজম, উপজেলা যুবসংহতির যুগ্ম-আহ্বায়ক ইব্রাহিম খলিল, আবু সুফিয়ানসহ শত শত নেতাকর্মী।