আজ  শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

মতলব উত্তরে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

M1

জাকির হোসেন বাদশা, মতলব (চাঁদপুর) ॥
চাঁদপুরের মতলব উত্তরে তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে ভাইয়ের হাতে মুক্তিযোদ্ধা সফিউল্লাহ গাজী (৬৫) নামে আরেক এক ভাই খুন হয়েছে। আজ সোমবার ভোর ৬ টায় উপজেলার লবাইরকান্দি গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী লাভলী বেগম বাদী হয়ে মতলব উত্তর থানায় নিহতের ভাই রহমান গাজী (৬০) ও তার ছেলে বাদল গাজীকে (৩৫) আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার এজাহার, প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, লবাইরকান্দি গ্রামের জাবেদ আলী গাজীর দুই ছেলে সফিউল্লাহ গাজী ও রহমান গাজী। দুই ভাইয়ের মধ্যে পূর্বে থেকেই সম্পত্তিগত বিরোধ ছিল। সোমবার ভোরে সফিউল্লাহর ঘরের সামনে থাকা পেয়ারা গাছের পাতা ও গাছের পানি পড়া নিয়ে তাদের দুই ভাইয়ের স্ত্রীদের মধ্যে প্রথমে ঝগড়া হয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা সফিউল্লাহ ও তার ভাই রহমান গাজী কথা কাটা-কাটির এক পর্যায়ে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলেই সফিউল্লাহ গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুন্ঠে পড়ে যান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এদিকে তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার বাদী ও নিহতের স্ত্রী লাভলী বেগম বলেন, আমার স্বামী একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তাকে সে (রহমান) গলাটিপে হত্যা করেছে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই। নিহতের ছেলে সাগর হোসেন বলেন, আমার চাচা আমার বাবাকে মেরে গলায় চেপে ধরে হত্যা করেছে। প্রত্যক্ষদর্শী হাজেরা বেগম বলেন, তাদের দুই ভাইয়ের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায়ে সফিউল্লাহ মাটিতে লুন্ঠে পড়ে গিয়ে তার কথা-বার্তা বন্ধ হয়ে যায়।
মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ারুল হক বলেন, গাছের পাতা ও পানি পড়া নিয়ে দুই পরিবার ঝগড়ায় জড়িয়ে পরে। এরপর তাদের দুই ভাইয়ের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। নিহতের লাশ পোষ্টমর্টেমে পাঠানো হয়েছে। এটা হত্যা না রোগজনিত মৃত্যু রিপোর্ট আসলে সত্যতা জানা যাবে।