আজ  সোমবার, ২০ মে, ২০১৯

শান্তিপূর্ণভাবে ৫ম দিন অতিবাহিত হলো সোলেমান লেংটার মেলা

Matlab uttar pic 1

জাকির হোসেন বাদশা ◊
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার বদরপুর হযরত শাহ্ সোলেমান লেংটার ওরশ শান্তিপূর্ণভাবে ৫ম দিন অতিবাহিত হলো। প্রতিদিন লাখো ভক্তের সমাগম ঘটে এই মেলায়। এ বছর মেলার আইন-শৃক্সখলা পরিস্থিতি ভাল পেয়ে খুশি লেংটার আশেকান ও মেলায় আগত ব্যবসায়ীরা। মাদক, চাঁদাবাজি, হয়রানিমুক্ত ও সার্বিক পরিস্থিতি ভাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে দর্শনার্থীরাও।

সোলেমান লেংটার মাজারের খাদেম মতিউর রহমান লাল মিয়া বলেন, বিগত বছরের থেকে এবার নজিরবিহীন ওরশ উদযাপন হলো। কোন রকম হয়রানি ও অপ্রীতিকর ঘটনার ছাড়াই ওরশ কার্যক্রম চলছে। এজন্য আমি আইন-শৃক্সখলা বাহিনীকে ধন্যবাদ জানাই। বিশেষ করে ওসি মো. মিজানুর রহমানসহ সকল পুলিশ সদস্য এবারের ওরশে যে কঠিন পদক্ষেপ নিয়েছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। লাল মিয়া আরও বলেন, মেলার শুরুতেই ওসি মিজানুর রহমান মাদক, চাঁদাবাজি, পকেটমার, মলমপার্টি এসবের প্রতি ছিলেন কঠোর। তাই মেলার ৫ম দিন পর্যন্ত কোনধরনের অপ্রীতিকর কিছু ঘটে নি। আমি আশা করি বাকি দিনগুলোও শান্তিপূর্ণভাবে অতিবাহিত হবে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা জানান, তারা বিভিন্ন জেলা থেকে লেংটার মেলা এসেছেন। এবারের পরিবেশ খুবই সন্তোষজনক। তাই তারা নির্বিঘ্নে মেলায় ঘুরতে পারছেন। কেউ কেউ লেংটার মাজারে এসেছেন মানত নিয়ে। লেংটার এক মহিলা ভক্ত বলেন, আমার নিঃসন্তান ছিলাম। লেংটার নামে মানত করার পর আমি সন্তানের মা হয়েছি। তাই মানত পরিশোধ করতে এসেছি। নারায়ণগঞ্জ থেকে আগত সোলেমান লেংটার আরেক পুরুষ ভক্ত বলেন, আমার শ্যালক লেংটার নামে একটি মানত করে সফল হয়েছে। তাই মানতের খাসি নিয়ে এসেছি।

মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুর রহমান জানান, সোলেমান লেংটার ওরশ ঘিরে আমাদের ব্যবস্থাপনা ছিলো অত্যন্ত কঠোর। মেলা শুরুতেই আমরা মাদক, চাঁদাবাজি, জুয়া, পুতুল নাচ বন্ধ করে দিয়েছি। মেলার বাকি দিনগুলো আইন-শৃক্সখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমি সকলের সহযোগীতা চাই।