আজ  রবিবার, ২০ মে, ২০১৮

শেখ হাসিনার সরকার কৃষক বান্ধব সরকার : ত্রাণ মন্ত্রী

মতলব উত্তরে কৃষকদের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ

Matlab news pic 1

আরাফাত আল-আমিন ◊

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া (বীর বিক্রম) এমপি বলেছেন, একসময় দেশে অনেক দুর্যোগ হত। এখন আগের তুলনায় দেশে অনেক দুর্যোগ কম হয়। পাশাপাশি কৃষকরাও ক্ষতিগ্রস্থ কম হয়। ফলে দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বর্তমানে কৃষকদেরকে সরকার বীজ, সার ও বিভিন্নভাবে সহায়তা প্রদান করছে। এছাড়াও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদেরও সরকার ভর্তুকি দিচ্ছে। যা বিগত দিন অন্যকোন সরকার দেয়নি। শেখ হাসিনার সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। কৃষকদের প্রতি শেখ হাসিনার নিজের বিশেষ দরদ আছে। যা আর কোন নেত্রীর নেই। শনিবার সকালে চাঁদপুরের মতলব উত্তরের মোহনপুর আলী ভিলা প্রাঙ্গনে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

২০১৭-১৮ অর্থ বছরে খরিপ-১/২০১৮ মৌসুমের কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচীর আওতায় ৯৯০ জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। উফসি আউশ চাষী ৮৫৮ জন ও নেরিকা আউশ চাষী ১৩২ জন। প্রতি জন কৃষককে উফসী আউশ বীজ ৫ কেজি, ইউরিয়া সার ২০ কেজি, এমওপি ১০ কেজি, ডিএপি ১০ কেজি ও নগদ ৫০০ টাকা। আর নেরিকা আউশ চাষীকে নেরিকা বীজ ১০ কেজি, ইউরিয়া সার ২০ কেজি, এমওপি ১০ কেজি, ডিএপি ১০ কেজি ও নগদ ৮শ’ টাকা করে প্রদান করা হয়েছে।

ত্রাণ মন্ত্রী আরও বলেন, কৃষি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য সরকার সহযোগিতা করার লক্ষে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়ে কাজ করায় কৃষি ফলন উৎপাদনে বহুগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকার কৃষি ফসল বাড়ানোর জন্য প্রনোদনা হিসেবে সার, বীজ ও কৃষি উপকরণসহ নগদ টাকা কৃষকের মাঝে বিতরণ করছে। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার যখন ক্ষমতায় আসে তখন কৃষিতে উৎপাদনমূখী শৃঙ্খলা থাকে। বর্তমান সরকার কৃষি ক্ষেত্রে বিপ্লব ঘটিয়েছে। মন্ত্রী বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে যে সারের জন্য কৃষককে জীবন দিতে হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার কৃষকের হাতের নাগালে বীজ ও সার পৌছে দিয়েছে।

মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে ও উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ, ছেঙ্গারচর পৌরসভার মেয়র রফিকুল আলম জজ প্রমুখ। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন, মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাহিদুল হক, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এইচএম জাহাঙ্গীর আলম, মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, বৃহত্তর মতলব উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার তমিজ উদ্দিন আহমদ, কলাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান ছোবহান সরকার (সুভা), শিল্পপতি আনিসুল হক, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি হাজী অখিল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক জিএম ফারুক প্রমুখ।