আজ  শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সওজ ও পৌরসভার অনুমতি না নিয়ে চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ সড়কের নিচে বোরিং করে পাইপ স্থাপন

 

চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ সড়কের ওয়ারলেস বাজার এলাকায় বোরিং করে রাস্তার নিচ দিয়ে মোটা প্লাস্টিকের পাইপ স্থাপন করা হয়েছে।
পৌরসভা এবং সড়ক ও জনপদের কাছ থেকে রোড কাটিং এর জন্য কোন ধরনের অনুমতি না নিয়েই বেশি শক্তি ব্যবহার করে ইবু গাজী ও তার ভাই জসিম গাজী লোকজন দিয়ে রাতের আধারে রাস্তা বোরিং করেছে।
মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে সরকার যখন ১৪ দিন সরকারি ছুটি ও সকল ধরনের কাজ বন্ধ করার ঘোষণা করেছে। ছুটির সময় ও নীরবতাকে কাজে লাগিয়ে ঠিক তখনই সরকারকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে পেশিশক্তি ব্যবহার করে সড়ক ও জনপদের রাস্তার নিচ দিয়ে বোরিং করে পাইপ স্থাপন করেছে।
মঙ্গলবার রাতে ওয়ারলেস বাজার এলাকায় ইবু গাজীর বাসার সামনে গিয়ে দেখা যায় সড়ক ও জনপদের রাস্তা বোরিং করার কাজ চলছে।
এ সময় ইবু গাজী নিজে উপস্থিত থেকে তার লোকজনদের সাথে নিয়ে রাস্তা বোরিং এর কাজ করতে দেখা যায়।
খবর পেয়ে সড়ক ও জনপদের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা এসে বাধা দিলেও সে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে তাদের কথা না শুনে বোরিং এর কাজ চালিয়ে যায়।
পৌরসভার অনুমতি না নিয়ে রাস্তা বোরিং করার খবর পেয়ে চাঁদপুর পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ গাড়ি নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের বাধা দেয়।
তারপরেও ইবু গাজী ও তার ভাই জসিম গাজী কাউকে তোয়াক্কা না করে এই মহাসড়কের নিচ দিয়ে বোরিং করে মোটা প্লাস্টিকের পাইপ স্থাপন করেছেন।
কিছুদিন পূর্বে চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ মহাসড়কের কাজটি করা হয়েছে। এই রাস্তা বোলিং করার কারণে আবারো রাস্তার মাঝখানে ডেবে গিয়ে ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এ সময় সাংবাদিকরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ছবি তুললে ইবু গাজী ও তার ভাই জসিম গাজী দুর্ব্যবহার করে।
এসময় ইমু গাজীর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সড়ক ও জনপদের রাস্তার নিচ দিয়ে অনেকে পাইপ ঢুকিয়ে কাজ করেছে তখন বাধা আসেনি এখন কেন বাধা এসেছে। এই প্লাস্টিকের পাইপ এর ভিতর দিয়ে পানির পাইপ রাস্তার ওপার থেকে এপার আনবো। আমি কিছু করতে গেলেই ছবি তুলতে হয় অন্যদের চোখে দেখেন না।

এ বিষয়ে সড়ক ও জনপদের কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন জানায়,সড়ক ও জনপদের রাস্তা বোরিং করার কারো ক্ষমতা নেই তারা অনুমতি না নিয়েই কাজটি করেছে। যারা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।