আজ  রবিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২০

চাঁদপুরে বাবা ও ছেলেকে বেঁধে সর্বস্ব লুট, থানায় মামলা

চাঁদপুরের বাবা ও ছেলেকে মারধর করে জালানার গ্রিলের সাথে বেঁধে রেখে ঘর থেকে সর্বোচ্চ লুট করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার ভোর ৫টায় চাঁদপুর সদর উপজেলার ৯ নং বালিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড দক্ষিণ গুলিসা গ্রামের হান্নান ঢালির বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই আওলাদ হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেন।
এই ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় হান্নান ডালী বাদী হয়ে ৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
জানা যায়, দক্ষিণ গুলিসা গ্রামের হান্নান ঢালীর পৈত্রিক সূত্রে মালিক হয়ে বসতঘর নির্মাণ করে তার সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছে।
পাশের এলাকার মৃত সোবহান তপাদারের ছেলে বেলায়েত তপাদার, জাহাঙ্গীর তফাদার, শিমু তফাদার, আমু ও আবিদ তপাদার নিজেদের সম্প্রতি দাবি করে হান্নান ডালির জায়গা দখল করার পাঁয়তারা করে।
এই ঘটনায় হান্নান তাপাদার বাদী হয়ে জেলা যুগ্ম জজ ১ম আদালতে একটি দেওয়ানী মামলা দায়ের করে।
সেই মামলায় হান্নান ডালির পক্ষে আদালতের রায় প্রদান করেন।
হান্নান ঢালী ও তার ছেলে মিনহাজ উদ্দিন ঢালী ঢাকা থেকে বাড়িতে আসার পর পূর্বপরিকল্পিতভাবে বেলায়েত তফাদার তারা পাঁচ ভাই মিলে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়।
হামলাকারীরা হান্নান ঢালী ও তার ছেলে মিনহাজউদ্দিন ডালিকে মারধোর করে ঘরের জালনার গ্রিল এর সাথে বেঁধে রাখে। পরে ঘর থেকে আলমারি ভেঙ্গে নগদ টাকা স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।
খবর পেয়ে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করায়।
ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার তারা ক্ষিপ্ত হয়ে বাদী ও তার ছেলেকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে বলে হান্নান ডালি জানিয়েছেন।
মডেল থানার এসআই আওলাদ জানায়, দক্ষিণ গুলশা গ্রামে তপদার বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় যারা অপরাধী তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা হবে।
এই ঘটনায় হান্নান ঢালির ছোট ভাই জানায়,ভাই ও ভাইয়ের ছেলে বাড়িতে আসার খবর শুনে প্রতিপক্ষরা  পরিকল্পিতভাবে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।
তারা দুজন ঢাকায় থাকার সুবাদে তাদের সম্পত্তি জবরদখল করার চেষ্টা করছে।
হান্নান দলিল বাড়িটি নির্জন স্থানে হওয়ায় এভাবে তার উপর হামলা চালিয়ে হাত-পা বেঁধে সর্বস্ব লুট করে নিয়ে যায় প্রতিপক্ষরা। এই ঘটনায় হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানাই।