আজ  শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

ফিঙ্গার প্রিন্ট মেলেনি সিইসির!

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) শনিবার সকাল আটটা থেকে চলছে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ইভিএম নিয়ে আছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। ইভিএমে ভোট দিতে গিয়ে ফিঙ্গার প্রিন্ট না মেলায় অনেকেই বিড়ম্বনায় পড়েছেন। যার মধ্যে আছেন খোদ প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদাও।  পরে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) দেখিয়ে নিজের ভোট দিতে পেরেছেন সিইসি।

শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে উত্তরার আইইএস স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন সিইসি। তিনি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ভোটার।

ইভিএমে ভোট দিতে গিয়ে ফিঙ্গার প্রিন্ট না মেলার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘ভোট দিতে পারার তিন-চারটা উপায় আছে। যিনি ভোট দেবেন তিনি কোনো একটা উপায় পাবেনই। যেমন আইডি কার্ড দেখতে পারে, ভোটার নম্বর এগুলো মিলালে তাদের ছবি এবং তাদের আইডি আসবে এবং সেখানে ভোট দিতে পারবে।’

উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা ১৪টি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ পেয়েছেন এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘পেয়ে থাকলে তারা ব্যবস্থা নেবেন। এখানে দুটো স্তর আছে মাঠে। একটা হলো কেন্দ্রের ওপর প্রিজাইডিং অফিসারের সম্পূর্ণ দায়িত্ব। তারপর মাঠে রিটার্নিং অফিসার সম্পূর্ণ ব্যবস্থা নেবেন। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে আমাদেরকে জানাবেন, তখন আমরা কেন্দ্র বন্ধ করে দেব। তাদের ওপর নির্দেশ আছে যদি কোনো কেন্দ্রে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় সাথে সাথে সেই কেন্দ্রের ভোট বন্ধ করে দেবে।’